• ২০ আশ্বিন১৪২৯  - বুধবার, অক্টোবর ৫, ২০২২

বদলিতে প্রাধান্য পাবে মেধা যোগ্যতা

বদলিতে প্রাধান্য পাবে মেধা যোগ্যতা

আয়কর ক্যাডার কর্মকর্তাদের বদলি-পদায়নে স্বচ্ছতা আনতে কর্মজীবন পরিকল্পনাসংক্রান্ত নীতিমালা তৈরি হয়েছে। এর আওতায় আগামী দিনে ক্যাডার পর্যায়ের শূন্যপদ নির্ধারণ এবং পিএসসির মাধ্যমে নিয়োগের সুপারিশ, প্রশিক্ষণ, পদোন্নতি, পদায়ন ও বদলি করা হবে। কর্মকর্তাদের বদলিতে প্রাধান্য পাবে মেধা, যোগ্যতা ও জ্যেষ্ঠতা। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) অধীন কর অঞ্চল ও বিশেষায়িত দপ্তরগুলোকে ৪ ক্যাটাগরিতে ভাগ করে পর্যায়ক্রমে বদলি ও পদায়ন করা হবে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

নীতিমালায় জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর), কর পরিদর্শন পরিদপ্তর, কর একাডেমি, কেন্দ্রীয় কর জরিপ অঞ্চল ও বিশেষায়িত ইউনিটগুলোকে ‘ক’ শ্রেণিতে রাখা হয়েছে। ‘খ’ শ্রেণিতে রাখা হয়েছে সেন্টার ইন্টিলিজেন্স সেল (সিআইসি), ঢাকার কর অঞ্চল, ঢাকা জেলার কর আপিল অঞ্চল ও বৃহৎ করদাতা ইউনিটকে (এলটিইউ-আয়কর)। ‘গ’ শ্রেণিতে রাখা হয়েছে চট্টগ্রাম, গাজীপুর, নারায়ণগঞ্জ জেলার কর অঞ্চল ও কর আপিল অঞ্চল। ‘ঘ’ শ্রেণিতে রাখা হয়েছে কুমিল্লা, সিলেট, খুলনা, রাজশাহী, বরিশাল, বগুড়া ও রংপুর কর অঞ্চলকে।

নবনিয়োগপ্রাপ্ত ও পদোন্নতিপ্রাপ্ত অফিসারদের প্রথম কর্মস্থল হবে ঢাকার বাইরে। নতুন নিয়োগপ্রাপ্তদের কর্মজীবন শুরু হবে ‘ঘ’ শ্রেণির দপ্তরে কাজের মধ্য দিয়ে। অর্থাৎ, ঢাকার বাইরে। তবে তারা নিজ জেলায় পদায়িত হবে না। পদোন্নতি পাওয়া উপকর কমিশনারদের ২ বছরের জন্য ‘ঘ’ শ্রেণিতে প্রথম পদায়ন করা হবে। এরপর তাদের ঢাকায় আনা হবে, ‘খ’ শ্রেণিতে। এ ধরনের অফিসারদের কোম্পানি সার্কেলে পদায়নের ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতাকে বিবেচনায় নেওয়া হবে। পদোন্নতি পাওয়া যুগ্ম কমিশনারদের প্রথমে পদায়ন করা হবে ‘ক’ ও ‘ঘ’ শ্রেণিতে ২ বছরের জন্য। অতিরিক্ত কমিশনারদের ক্ষেত্রে ‘ক’ ও ‘ঘ’ শ্রেণির পরিদর্শী রেঞ্জ কর্মকর্তা হিসাবে কাজের অভিজ্ঞতা থাকলে পরবর্তী সময়ে ‘খ’ ও ‘গ’ শ্রেণিদের পদায়ন করা হবে। অবশ্য কমিশনার পদে পদায়নের ক্ষেত্রে ‘ক’ শ্রেণির অফিসে কাজের অভিজ্ঞতাকে প্রাধান্য দেওয়া হবে। অন্য পদোন্নতিপ্রাপ্ত কমিশনারদের প্রথম কর্মস্থল হবে ট্যাক্সেস আপিলাত ট্রাইব্যুনাল ব্যতীত ‘গ’ ও ‘ঘ’ শ্রেণির দপ্তরে।

অন্যান্য
ভ্রমন