• ২০ আশ্বিন১৪২৯  - বুধবার, অক্টোবর ৫, ২০২২

চা শ্রমিকদের আন্দোলনে সংহতি ফখরুলের

চা শ্রমিকদের আন্দোলনে সংহতি ফখরুলের

সুরমা ও তেলিয়াপাড়া চা বাগানের কয়েক হাজার চা শ্রমিক তাদের মজুরি বৃদ্ধির যৌক্তিক দাবিতে যে আন্দোলন করছেন, তার প্রতি সংহতি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব বলেন, উল্লিখিত চা শ্রমিকদের বর্তমান মজুরি ১২০ টাকা, এই স্বল্প মজুরিতে মানবেতর জীবনযাপন করা ছাড়া কোনো উপায় নেই। বর্তমানে দুর্মূল্যের ঊর্ধ্বগতির বাজারে এ মজুরিতে চা শ্রমিকদের অনাহারে-অর্ধাহারেই দিন কাটবে। দেশের চা শিল্পের সঙ্গে জড়িত হাজার হাজার শ্রমিক ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। শ্রমিকদের হাড়ভাঙা পরিশ্রমের কারণে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা অর্জিত হয় আমাদের দেশের চা রপ্তানির মাধ্যমে। চা শ্রমিকদের অর্থনৈতিক দূরাবস্থার কারণে চা শিল্প সংকটাপন্ন হতে পারে। এই চা শিল্পের উন্নতিতে শ্রমিকদের ভূমিকা অপরিসীম। কিন্তু শ্রমিকদের সঙ্গে মালিকপক্ষের বিমাতাসূলভ আচরণ এবং তাদের ন্যায্য দাবির প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলি প্রদর্শনে চা শিল্পের উন্নতি বাধাগ্রস্ত হবে এবং চা শিল্পে স্থবিরতা নেমে আসবে।

সরকারের দুর্নীতি ও হরিলুটের কারণে ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী ‘আঙুল ফুলে কলাগাছ’ হয়ে তারা দেশে-বিদেশে বিপুল সম্পত্তির মালিক হচ্ছে, অন্যদিকে দেশীয় অর্থনীতির মেরুদণ্ড যে শ্রমিকরা তাদের নানাভাবে বঞ্চিত করে যাঁতাকলে পিষ্ট করা হচ্ছে। মালিকদের কাছ থেকে কোনো ধরনের আশ্বাস না পেয়ে নিরুপায় হয়ে চা শ্রমিকরা ন্যায্য দাবিতে আন্দোলন করছে। তারা যাতে আরও বড় ধরনের দুর্ভোগে পতিত না হয়, সে জন্য মালিকপক্ষকে দ্রুত এগিয়ে আসতে হবে।

বিবৃতিতে তিনি আরও বলেন, চা শ্রমিকদের ক্ষুধা, দারিদ্র্য ও ভোগান্তি নিরসনে এ মুহূর্তে শ্রমিকদের ন্যায়সঙ্গত মজুরি বৃদ্ধির উদ্যোগ নিতে হবে। চা শ্রমিকদের দাবি আদায়ের এই আন্দোলন ন্যায়সঙ্গত এবং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি তাদের এ দাবি মেনে নেওয়ার জোর আহ্বান জানাচ্ছে।  

অন্যান্য
ভ্রমন