• ১৫ অগ্রহায়ণ১৪২৯  - মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৯, ২০২২

গাজীপুরে ফিলিং স্টেশনে দগ্ধ ৫ জনের কাউকে বাঁচানো গেল না

গাজীপুরে ফিলিং স্টেশনে দগ্ধ ৫ জনের কাউকে বাঁচানো গেল না

গাজীপুর মহানগরীর ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বড়বাড়ি এলাকায় ফিলিং স্টেশনে সিলিন্ডারবাহী গাড়িতে অগ্নিকাণ্ডে দগ্ধ পাঁচজনের সবাই একে একে মারা গেলেন।

সবশেষ আনোয়ার হোসেন (৩০) নামে এক যুবক রোববার রাত সাড়ে ১১টার দিকে মারা যান। তিনি শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন ছিলেন। আনোয়ারসহ পাঁচজনের কাউকেই বাঁচানো গেল না।

আনোয়ারের বাবার নাম আইজুল ইসলাম। বাড়ি ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে। আগুনে তার শরীরের ৪০ শতাংশ পুড়ে গিয়েছিল।

আনোয়ারের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের আবাসিক সার্জন ডা. এসএম আইউব হোসেন।
তিনি বলেন, দগ্ধ আনোয়ার চিকিৎসাধীন আইসিইউতে মারা গেছেন। এর আগে চিকিৎসাধীন আরও চারজনের মৃত্যু হয়।

গত ১৩ অক্টোবর রাত সাড়ে ৮টার দিকে দগ্ধ অবস্থায় পাঁচজনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের জরুরি বিভাগে আনা হয়। তারা হলেন— আলামিন (২৫), আনোয়ার (৩০), সিরাজুল ইসলাম (২৮), পারভেজ (৩৩) ও মিঠু (২৬)।

এর মধ্যে ১৪ অক্টোবর মিঠুর মৃত্যু হয়। তার শরীরের ১০০ শতাংশই দগ্ধ ছিল। এর পর একে একে চিকিৎসাধীন পাঁচজনই মারা গেলেন।


ভ্রমন