শ্রীদেবীকে হত্যা করা হয়েছে: বিজেপির এমপি

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

বলিউডের হার্টথ্রব, সুপারস্টার নায়িকা শ্রীদেবীকে হত্যা করা হয়েছে বলে মনে করেন ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির এমপি সুব্রামনিয়ান স্বামী। তিনি এই মহান শিল্পীর মৃত্যুতে সংশয় প্রকাশ করেছেন। বলেছেন, শ্রীদেবীতো কখনো ভারি পানীয় পান করতেন না। কীভাবে তার শরীরে এমন পানীয় এলো?

শ্রীদেবীর মৃত্যুর খবরে ভারতজুড়ে লাখো কোটি ভক্তের হৃদয়ে যখন ক্ষরণ, তখন এমন মন্তব্য করেছেন সুব্রামানিয়া স্বামী। এ খবর দিয়েছে ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল নিউজএক্স। এর অনলাইন সংস্করণে প্রকাশিত এক রিপোর্টে এসব কথা জানানো হয়েছে।

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি দুবাইয়ের স্থানীয় সময় রাত ১১টার দিকে হোটেলকক্ষে মারা যান শ্রীদেবী। প্রথমে বলা হয়, তিনি হার্ট এটাকে মারা গেছেন। কিন্তু পরে ফরেনসিক পরীক্ষায় বলা হয়, তিনি হার্ট এটাকে মারা যাননি। তার শরীরে এলকোহলের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। তিনি ওই রাতে যখন বাথটাবে গোসল করতে গিয়েছিলেন তখন অচেতন হয়ে পড়েন। ফলে তাতেই পানিতে ডুবে মারা যান তিনি। এ তথ্য ফাঁস হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘটনার ডাইমেনশন পাল্টে যায়। কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া দুবাই ছাড়তে বারণ করা হয়েছে শ্রীদেবীর স্বামী বনি কাপুরকে।

সোমবার শ্রীদেবীর লাশ ভারতে আনার কথা থাকলেও আকস্মিকভাবে তা বিলম্বিত করা হয়। তার লাশ দুবাইয়ের একটি মর্গে রাখা হয়েছে। আরও তদন্ত শেষে তা দেশে ফেরত পাঠানো হবে।

ঠিক এ মুহূর্তেই নিউজএক্স ওই খবর দিয়েছে। এতে বলা হয়, শ্রীদেবীর মৃত্যুর খবরে সারাদেশে তার ভক্তরা ভেঙে পড়েছেন। তার বাড়িতে উপস্থিত হচ্ছেন বলিউড বাদশা শাহরুখ খান থেকে শুরু করে বড় বড় সব সহঅভিনেতা। তাদের সঙ্গে সুর মিলিয়ে শোক প্রকাশ করেছেন সুব্রামানিয়া স্বামী।

তিনি বলেছেন, (দুবাইয়ের) প্রকিসিকিউশন কী বলে তার জন্য আমাদের অপেক্ষা করা উচিত। কিন্তু মিডিয়া তো চুপ করে থাকতে পারে না। তিনি (শ্রীদেবী) কখনো ভার পানীয় পান করতেন না। তাহলে কীভাবে তার শরীরে এটা প্রবেশ করলো? সিসিটিভির কী হয়েছিল?

তিনি বলেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এ সব নিয়ে হয়তো পরীক্ষা নিরীক্ষা করছে। শ্রীদেবীর মেডিকেল রিপোর্টের বিষয়ে আরো অধিকতর প্রশ্ন তুলেছেন সুব্রামানিয়া স্বামী। তিনি বলেছেন, চিকিৎসকরা অকস্মাৎ মিডিয়ার সামনে উপস্থিত হলেন এবং বললেন- তিনি (শ্রীদেবী) মারা গিয়েছেন হার্ট এটাকে। তাই তিনি নিজের মতামত তুলে ধরেন বলেন, তিনি মনে করেন শ্রীদেবীকে হত্যা করা হয়েছে।

Share.