ছেলের সামনেই প্রতিবেশী শিশুকে ধর্ষণ করলেন বাবা!

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

এগার বছরের শিশুটিকে প্রতিনিয়ত ধর্ষণ করতেন চার সন্তানের জনক আব্দুর রশিদ মাঝি (৪৫)। বৃহস্পতিবার বিকেলে রশিদ তার ছেলের সামনেই আবার শিশুটিকে ধর্ষণ করেন। ঘটনাটি শরীয়তপুর পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ডের স্বর্ণঘোষ এলাকার।

এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে রশিদকে গ্রেফতার করেছে পালং মডেল থানা পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ধর্ষণের ঘটনাটি স্বীকার করেছেন রশিদ। রশিদকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশ।

গ্রেফতার আব্দুর রশিদ ভেদরগঞ্জ উপজেলার চরভাগা এলাকার মজিবর মাঝির ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন যাবত স্বর্ণঘোষ গ্রামের সৌদী প্রবাসী আনোয়ার বেপারীর বাড়িতে কেয়ারটেকার হিসেবে কাজ করছেন।

রশিদ মাঝির ছেলে ইমরান মাঝি (১৭) বলে, বাবা শিশুটিকে আমার সামনেই বাথরুমে ঢুকিয়ে খারাপ কাজ করেছে। আমি ডাকাডাকি করলেও শোনেননি তিনি।

পুলিশ জানায়, শিশুটির পরিবার সৌদী প্রবাসী আনোয়ার বেপারীর প্রতিবেশি। বৃহস্পতিবার বিকেলে শিশুটি আনোয়ার বেপারীর বাড়িতে আসলে ভয়ভীতি দেখিয়ে বাড়ির ২য় তলায় বাথরুমে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে রশিদ। এ সময় শিশুটির চিৎকার শুনে প্রতিবেশী আবুল বাশার তাকে উদ্ধার করেন। ততক্ষণে রশিদ পালিয়ে যায়।

পালং মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মনিরুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ধর্ষণের ঘটনায় শিশুটির বাবা বাদী হয়ে আব্দুর রশিদ মাঝির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। পরে রশিদকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Share.