আ’লীগ নেতার গোডাউন থেকে সরকারি চাল জব্দ

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

টাঙ্গাইলের গোপালপুরের উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষিবিষয়ক সম্পাদক আবুল হোসেনের গোডাউন থেকে ৯০ বস্তা সরকারি চাল জব্দ করেছে পুলিশ। সোমবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলার নগদা শিমলা এলাকা থেকে ওই চাল জব্দ করে পুলিশ।

উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা মনজুরুল ইসলাম বলেন, জব্দ চাল সরকার নির্ধারিত কার্ডধারীদের মাঝে ১০ টাকা কেজি দরে বিক্রি করার জন্য খাদ্য গুদাম থেকে উত্তোলন করা হয়। পরে অসৎ উদ্দেশ্যে সেগুলো মজুদ করা হয়েছিল।

গোপালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ হাসান আল মামুন বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আবুল হোসেন ওই ইউনিয়নের ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রির সরকার নির্ধারিত ডিলার।

‘সোমবার বিকেলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে খাদ্য কর্মকর্তা মঞ্জুরুল ইসলাম পুলিশ সহকারে আবুল হোসেনের গোডাউন অভিযান চালায়। এসময় গোডাউন থেকে ৯০ বস্তা চাল উদ্ধার করা হয়। আইনগত প্রক্রিয়া চলমান আছে।’

নাম প্রকাশ না করে স্থানীয় এক মুক্তিযোদ্ধা জানান, এবার যে ১০ টাকা কেজির চাল বিতরণ করা হয়েছে এটাই আমরা জানিনা। ধরা না পড়লে এটাও জানতাম না। আরো কতো চাল কতোভাবে কোথায় গেছে কে জানে।

‘কতিপয় অসাধু আওয়ামী লীগের নেতারা প্রশাসনের সহায়তায় সরকারের ভালো একটি কার্যক্রমকে কলঙ্কিত করছে। এমন দুর্নীতি শুধু গোপালপুরে নয় সারাদেশেই চলছে। এ কার্যক্রমে গরীবের উপকারের চেয়ে নেতাদের পকেট ভারিই বেশি হচ্ছে।’

গোপালপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিলরুবা শারমিন চাল উদ্ধারের সত্যতা স্বীকার করছেন। এ নিয়ে যাচাই-বাচাই চলছে। যাচাই-বাচাই শেষে আইনগত প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে।

Share.