দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটায় ছোট মাছ!
দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটায় ছোট মাছ!

দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটায় ছোট মাছ!

পরিসংখ্যান বলছে কর্মব্যস্ততা, অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন সহ আরও নানা কারণে ২৫-৪০ বছর বয়সিদের শরীরে পুষ্টির অভাব দেখা দিচ্ছে। ফলে একদিকে যেমন শরীরের সচলতা হ্রাস পাচ্ছে, তেমনি চোখের ক্ষমতাও কমছে। তাই তো প্রতিদিনের ডায়েটে বিশেষ কিছু খাবারের থাকাটা একান্ত প্রয়োজন।

আমাদের সবারই জানা যে ছোট মাছ খেলে দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটে। কিন্তু এই খাবারটি ছাড়াও যে আরও বেশ কিছু খাবার রয়েছে, যা নানাবিধ চোখের সমস্যাকে দূরে রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

১। মাছঃ ছোট মাছ তো বটেই সেই সঙ্গে ম্যাকারেল এবং টুনার মতো সামুদ্রিক মাছও খেতে হবে। আসলে সামুদ্রিক মাছে উপস্থিত ফ্যাটি অ্যাসিড দৃষ্টিশক্তির উন্নতিতে সাহায্য করে। তাই চোখের দৃষ্টিশক্তি ভাল রাখতে প্রতিদিন খাবার টেবিলে মাছ রাখা খুব জরুরি।

২। ভূট্টাঃ এতে প্রচুর মাত্রায় লুটেইন এবং জিয়াক্সেনথিন রয়েছে। আর একথা তো সকলেই ইতিমধ্যে জানেন যে এই দুটি উপাদান হল চোখের বেস্ট ফ্রেন্ড। তাই ভুট্টা যত বেশি বেশি করে খাবেন, তত আপনার দৃষ্টিশক্তি বাড়তে শুরু করবে।

৩। বাদামঃ এতে উপস্থিত ভিটামিন ই ম্যাকুলার ডিজেনারেশন বা চোখের স্বাস্থ্যের অবনতি আটকাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। তাই যদি চশমা ব্যবহার করতে না চান, তাহলে আজ থেকেই রোজ বাদাম খাওয়া শুরু করতে পারেন।

৪। লেবুঃ কমলা লেবু এবং পাতি লেবু বেশি করে খাওয়া শুরু করুন। এই সব ফলে প্রচুর মাত্রায় ভিটামিন সি রয়েছে। এই ভিটামিন চোখে ছানি পড়া প্রতিরোধে বিশেষ ভূমিকা নেয়। সেই সঙ্গে দৃষ্টিশক্তিরও উন্নতি ঘটায়।

৫। ডিমঃ প্রতিদিন একটা করে ডিম খেলে শরীরে লুটেইন, জিয়াক্সেনথিন এবং জিঙ্কের পরিমাণ বাড়তে শুরু করে। এই উপাদানগুলি চোখের স্বাস্থ্যের উন্নতিতে দারুন ভাবে সাহায্য করে থাকে।

এখানে মন্তব্য করুন
শেয়ার করতে আপনার একাউন্ট আইকণে ক্লিক করুন

Check Also

কতক্ষণ ব্যবহার করবেন স্যানিটারি ন্যাপকিন

কতক্ষণ ব্যবহার করবেন স্যানিটারি ন্যাপকিন

নারীর পিরিয়ড তাকে প্রতি মাসে গর্ভধারণের জন্য প্রস্তুত করে। এই অবস্থা গড়ে ২৮ দিন পর্যন্ত …